1. aponi955@gmail.com : Apon Islam : Apon Islam
  2. mdarifpress@gmail.com : Nure Alam Siddky Arif : Nure Alam Siddky Arif
  3. hasanchy52@gmail.com : hasanchy :
  4. sandhanitv@gmail.com : Kamrul Hasan : Kamrul Hasan
  5. glorius01716@gmail.com : Md Mizanur Rahman : Md Mizanur Rahman
  6. mrshasanchy@gmail.com : Riha Chy : Riha Chy
বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৩০ পূর্বাহ্ন

মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে বিয়ার উন্মুক্ত করা নিয়ে আলোচনা

  • প্রকাশ: শুক্রবার, ৮ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৩৯ বার দেখা হয়েছে

মাদকদ্রব্যের ছোবল থেকে পরবর্তী প্রজন্মকে বাঁচাতে বিকল্প চিন্তাভাবনা করছে সরকার। কীভাবে মাদকের অবৈধ ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করা যায় তা নিয়ে চলছে আলোচনা। এমনকি আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে বিয়ার উন্মুক্ত করা যায় কিনা তা-ও আলোচিত হয়েছে।

গতকাল ৭ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাতে জানিয়েছে বাংলা ট্রিবিউন।

বিয়ার উন্মুক্ত করার বিষয়ে বৈঠকে কোনো সিদ্ধান্ত হয়েছে কিনা জানতে চাওয়া হয় আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সদস্য আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের কাছে। তিনি বলেন, ‘আলোচনা পর্যন্তই। কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।’

বৈঠক সূত্র জানায়, রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় লাইসেন্স করেই ওয়াইন ও বিয়ার বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। আর বারেও নিষিদ্ধ নয় ওয়াইন। অন্তত বিয়ার উন্মুক্ত করলে ইয়াবাসহ বিভিন্ন ভয়াবহ মাদকদ্রব্য থেকে দূরে থাকবে তরুণেরা। এ কারণে বিয়ার উন্মুক্ত করা যায় কিনা তা নিয়ে ভাবা প্রয়োজন বলে এসময় কেউ কেউ মত দেন। তারা জানান, এর ফলে ইয়াবার মতো মারণনেশা থেকে দূরে সরানো সম্ভব তরুণদের।

বৈঠক সূত্রে আরো জানা গেছে, নির্দিষ্ট জায়গা ছাড়া বিয়ার-ওয়াইন নিষিদ্ধ থাকলেও তা কেউ মানছে না। চুপি চুপি অনেকেই এসব সেবন করছে। সেসব দিক বিবেচনা করে বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানায়, ধর্মীয়ভাবে বিষয়টি কোনো পক্ষ নেতিবাচক দৃষ্টিতে নিতে পারে। সে কারণে সাবধানতার সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা কমিটি বিষয়টি বিবেচনা করবে।

এছাড়াও বৈঠকে দেশে মাদকের প্রবেশ বন্ধে সীমান্তের ৩২টি পয়েন্টে টহল জোরদার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পুলিশ, বিজিবি, কোস্টগার্ডসহ যৌথ টহল জোরদার করা হবে। মিয়ানমার থেকে ইয়াবাসহ বিভিন্ন সীমান্তপথ দিয়ে যেন কোনো মাদক আসতে না পারে সেদিকেও কঠোর নজরদারি করা হবে।

বৈঠকের পর কমিটির সভাপতি মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী মাদকের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন।’

দেশব্যাপী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে মাদকবিরোধী, নারী নির্যাতনবিরোধী বহু সমাবেশ হয়েছে উল্লেখ করে তিনি জানান, সীমান্ত এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অত্যন্ত তৎপর আছে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের অন্যান্য খবর
© All rights reserved © Sandhani TV
Theme Design by Hasan Chowdhury