বাংলাদেশে আয়োজিত হচ্ছে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি প্রেসিডেন্টস ফোরাম-২০১৯ (এইউপিএফ-২০১৯)। দেশে প্রথমবারের মতো এই ফোরামের আয়োজন করেছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। এ আয়োজনে সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি। বাংলাদেশসহ এশিয়ার ১৫টি দেশের ৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট, ভাইস চ্যান্সেলর ও র‌্যাক্টররা এ ফোরামে অংশ নেবেন।

শুক্রবার (২২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর সোবহানবাগে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ৭১ মিলনায়তনে এক পরিচিতি পর্বের মধ্য দিয়ে তিন দিনব্যাপী এই সম্মেলন শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম। তিনি বলেন, ‘ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটি এই সম্মেলনের আয়োজন করার জন্য আমি ধন্যবাদ জানাই। আশা করি, এই সম্মেলন বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য আরও সুযোগ প্রসারিত করবে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো উচ্চশিক্ষার উন্নয়নে ও প্রসারে যেভাবে নানা উদ্যোগ নিচ্ছে তা প্রশংসনীয়। সরকারও তাই চায়। এজন্য সরকার শিক্ষার উন্নয়নে ৩৫ কোটি বই বিনামূল্যে বিতরণের ব্যবস্থা করেছে। কারণ মানসম্মত শিক্ষাই আগামী দিনের নেতৃত্ব তৈরিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।’

এ সময় বিদেশি অতিথিদের উদ্দেশে এইউপিএফ স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য ও ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা মো. সবুর খান বলেন, ‘আগত অতিথিরা অনেকেই বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এসেছেন। আমাদের আন্তরিক প্রচেষ্টা থাকবে আপনাদের যথাসাধ্য সন্তুষ্ট করার। আমাদের এবারের সম্মেলনের প্রতিপাদ্য– ‘উদ্যোক্তা শিক্ষার ভবিষ্যৎ ও অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞান: এশিয়ার অর্থনীতিতে সফল উদ্যোক্তা উন্নয়নের পরিবেশ তৈরির নিয়ামকসমূহ’। আমি আশা করি, আপনারা বিশ্বাস করেন, উদ্যোক্তা তৈরি করা ছাড়া কোনও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানই টেকসই হতে পারবে না ভবিষ্যতে। কারণ প্রযুক্তির প্রসার ও চিন্তার ভিন্নতার কারণে আমরা আজকে প্রযুক্তি ছাড়া অন্ধকারেই থেকে যাব। এ কারণেই আমরা এই প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছি।’