1. aponi955@gmail.com : Apon Islam : Apon Islam
  2. mdarifpress@gmail.com : Nure Alam Siddky Arif : Nure Alam Siddky Arif
  3. hasanchy52@gmail.com : hasanchy :
  4. sandhanitv@gmail.com : Kamrul Hasan : Kamrul Hasan
  5. glorius01716@gmail.com : Md Mizanur Rahman : Md Mizanur Rahman
  6. mrshasanchy@gmail.com : Riha Chy : Riha Chy
শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন

ঢাকা-সিকিমে সরাসরি বাস সার্ভিস চালু

  • প্রকাশ: শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৬৫ বার দেখা হয়েছে

প্রথমবারের মতো রাজধানী ঢাকা থেকে দার্জিলিং-সিকিমে সরাসরি বিআরটিসি বাস সার্ভিস চালু হয়েছে।

রাজধানী ঢাকা থেকে বিআরটিসির ব্যানারে বাস দুটি পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা হয়ে ছেড়ে যায়। এখন থেকে ঢাকা হতে আগত পর্যটকরা নিয়মিত এ বাস সার্ভিসে যেতে পারবে। নতুন এই বাস সার্ভিস চালু হলে ভারতের এই দুটি পর্যটন গন্তব্যে আগের চেয়ে সহজে ও আরামদায়কভাবে যাতায়াত করতে পারবেন দেশের ভ্রমণ পিপাসুরা।

এ সময় বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন- বাংলাদেশ সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব বাবু চন্দন কুমার দে, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশন চেয়ারম্যান এহসান এলাহী ও বাংলাদেশ অপারেটর এনআর ট্রাভেলস ব্যবস্থাপনা পরিচালক বাবু শুভংকর ঘোষ রাকেশ।

 এছাড়াও বাংলাদেশ সড়ক ও জনপদ বিভাগের ১৮জনসহ বিআরটিসির আটজন ও শ্যামলী পরিবহনের ১৫জন ঢাকা থেকে ট্রায়াল রানে যাওয়া বাস দুটিতে ছিলেন। মোট ১ হাজার ১৪০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে সিকিম পৌঁছাবে বাস দুটি। পাঁচদিনের সফর শেষে ১৬ ডিসেম্বর দেশে ফিরে আসবে। 

বিআরটিসি’র চেয়ারম্যান এহছানে এলাহী জানান, ঢাকা-সিকিম রুটের বর্তমান অবস্থা, পর্যটক সুবিধা ও নিয়মিত বাস চালু করতেই ট্রায়াল রানটি চালানো হবে। এই পথ সদ্য বাংলাদেশের বাসিন্দাও পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। সিকিমে এখন বাংলাদেশের পর্যটকরা যেতে পারছেন। এই বাস চালু হলে আরও পর্যটক বাড়বে। আর সেই সব সম্ভাবনা ঘিরেই এই পথে দুই দেশের মধ্যে বাস চলাচলের রাস্তা সহজ হচ্ছে।

এ বিষয়ে বিআরটিসি’র চেয়ারম্যান এহছানে এলাহী বলেন,১২ ডিসেম্বর রাজধানীর মতিঝিল থেকে আসা বাস দুটি বাংলাবান্ধা ইমিগ্রেশন শেষে শিলিগুড়ি হয়ে সিকিম ও দার্জিলিংয়ের পথে রওনা হয়ে গেছে । পাঁচদিনের সফর শেষে ১৬ ডিসেম্বর দেশে ফিরে আসবে বাস দুটি।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের অন্যান্য খবর
© All rights reserved © Sandhani TV
Theme Design by Hasan Chowdhury