ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরসহ হাসপাতালে ভর্তি শিক্ষার্থীদের অবস্থা ভালো। তাদের চিকিৎসা নিয়ে লুকোনোর কিছু নেই। আজ সকাল থেকে নুরের কনুইয়ে ব্যথা। আমরা তার এক্সরে করেছি। রিপোর্ট ভালো আসলে আজই হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হবে। আরও ২-৩ জনকে আজ ছেড়ে দেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. এ কে এম নাসির উদ্দিন।

শিক্ষার্থীদের শারীরিক অবস্থা নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ লুকোচুরি করছে এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে ঢামেক হাসপাতাল পরিচালক বলেন, তাদের চিকিৎসা নিয়ে লুকোচুরি করার কিছু নেই। আমরা তাদের জন্য মোট ১৩ জনের একটি বড় মেডিকেল বোর্ড (প্রথমে ৯ জন পরে পর্যায়ক্রমে বোর্ডে ৪ জন সংযুক্ত) গঠন করি। এতোবড় বোর্ড আগে কখনও হয়নি। তাদের যার যা চিকিৎসা প্রয়োজন তাৎক্ষণিকভাবে সেই চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তুহিন ফারাবীর অবস্থা আগের চেয়ে ভালো। তার এইচডিইউতে (হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিট) থাকার কোনও প্রয়োজন নেই। তারপরেও অতিরিক্ত দর্শনার্থীর কারণে তার ইচ্ছা অনুযায়ী তাকে এইচডিইউতে রাখা হয়েছে। তাদের চিকিৎসা ভালো হচ্ছে, এ নিয়ে আমরা ১০০% কনফিডেন্ট।

২২ ডিসেম্বর (রোববার) নুরুল হক নুর ও তার অনুসারীদের ওপর হামলা চালান মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একাংশের নেতা-কর্মীরা। হামলায় অন্তত ৩২ জন আহত হন।