1. aponi955@gmail.com : Apon Islam : Apon Islam
  2. mdarifpress@gmail.com : Nure Alam Siddky Arif : Nure Alam Siddky Arif
  3. hasanchy52@gmail.com : hasanchy :
  4. sandhanitv@gmail.com : Kamrul Hasan : Kamrul Hasan
  5. glorius01716@gmail.com : Md Mizanur Rahman : Md Mizanur Rahman
  6. mrshasanchy@gmail.com : Riha Chy : Riha Chy
সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৫৪ অপরাহ্ন

সৌম্যর ব্যাটে প্লে-অফের লড়াইয়ে থাকলো কুমিল্লা

  • প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১৫১ বার দেখা হয়েছে

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে হার দিয়ে এবারের টুর্নামেন্ট শেষ করেছে সিলেট থান্ডার্স। সৌম্য সরকারের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের সুবাদে পরের রাউন্ডে যাওয়ার লড়াইয়ে টিকে থাকলো কুমিল্লা।

মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) হোম অব ক্রিকেট মিরপুরে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামে নেমে সিলেট ৫ উইকেটে ১৪১ রান করে। জবাবে ৫ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখেই কুমিল্লা জয়ের বন্দরে পা রাখে। 

শুরুটা সতর্ক করেন দুই ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার ও আব্দুল মজিদ। তবে একটু আগ্রাসী হতেই আল-আমিন হোসেনের বলে ফেরেন ২২ রান করা ফ্লেচার । পরে জনসন চার্লসকে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন মজিদ। আল-আমিনের বলে ব্যক্তিগত ২৬ রান করে চার্লস ফেরেন।

এরপর মোহাম্মদ মিঠুনকে নিয়ে খেলা ধরেন মজিদ। যদিও রক্ষণাত্মক খোলস ছেড়ে বের হতে পারেনি এই জুটি। মুজিব-উর রহমানের বলে বিদায় নেন মিঠুন।।শেষদিকে এসে ঝড় তোলার চেষ্টা করেন জীবন মেন্ডিস। তবে দ্রুতগতিতে রান তোলার জন্য সেটা যথেষ্ট ছিল না। ১১ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ফেরেন তিনি। তাকে আউট করেন ডেভিড উইজি।

টপ অর্ডাররা একে একে বিদায় নিলেও একপ্রান্ত আগলে ছিলেন মজিদ। শেষদিকে  ৪০ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ৪৫ রানের ধৈর্যশীল ইনিংস খেলে তিনি ফেরেন। তাকেও শিকার বানান উইজি। 

১৪২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় কুমিল্লা। সূচনাতেই নাঈম হাসানের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন ফারদিন হাসান। একই বোলারের বলে বোল্ড হয়ে দ্রুত প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন উপল থারাঙ্গা। নাঈমের তৃতীয় শিকার হয়ে ফেরত আসেন নাহিদুল ইসলাম।মাত্র ৩২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে কুমিল্লা। 

সৌম্য সরকারকে নিয়ে দলের হাল ধরেন ডাভিড মালান। দারুণ জুটি গড়ে তোলেন এই দুই ব্যাটসম্যান। উভয়ই স্ট্রোকের ফুলঝুরি ছোটাতে থাকেন। তাতে কুমিল্লা দ্রুতগতিতে ঘুরে দাঁড়িয়ে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে। ফিফটি তুলে নেন ম্যাচ সেরা মালান। এরপর এবাদত হোসেনের বলে এই ওপেনার ৪৯ বলে ২টি করে চার-ছক্কায় ৫৮ রানের দায়িত্বশীল ইনিংস খেলেন।

মালান ফিরলেও থেকে যান সৌম্য। পরে ডেভিড উইজিকে নিয়ে জয়ের পথে এগিয়ে যান তিনি। তবে জয় থেকে সামান্য দূরে থাকতে জনসন চার্লসের বলে আউট হন উইজি। শেষ ওভারে চার্লসের প্রথম বলে চার মেরে খেলা শেষ করেন ৩০ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কার মারে ৫৩ রান করা সৌম্য।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের অন্যান্য খবর
© All rights reserved © Sandhani TV
Theme Design by Hasan Chowdhury