1. aponi955@gmail.com : Apon Islam : Apon Islam
  2. mdarifpress@gmail.com : Nure Alam Siddky Arif : Nure Alam Siddky Arif
  3. hasanchy52@gmail.com : hasanchy :
  4. sandhanitv@gmail.com : Kamrul Hasan : Kamrul Hasan
  5. glorius01716@gmail.com : Md Mizanur Rahman : Md Mizanur Rahman
  6. mrshasanchy@gmail.com : Riha Chy : Riha Chy
শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:০৭ অপরাহ্ন

সড়ক হবে ১০ লেনের ॥ আন্তর্জাতিক মানের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ে

  • প্রকাশ: শনিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ১১৫ বার দেখা হয়েছে
  • জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ সড়ক উন্নীত হবে এক্সপ্রেসওয়েতে;###;ঢাকা থেকে সর্বোচ্চ দেড় ঘণ্টায় ময়মনসিংহে পৌঁছা যাবে;###;পিপিপি ভিত্তিক প্রকল্পে অর্থায়নে আগ্রহী দক্ষিণ কোরিয়া;###;থাকবে ইমার্জেন্সি লেন, পৃথক লেনে চলবে স্থানীয় যানবাহন

রাজন ভট্টাচার্য ॥ দেশে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক মানের ১০ লেনের সর্বাধুনিক এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। চার লেনের জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ পর্যন্ত ৮৭ দশমিক ১৮ কিলোমিটার সড়কটি এক্সপ্রেসওয়েতে উন্নীত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের পক্ষ থেকে। সরকারী-বেসরকারী অংশীদারিত্বের (পিপিপি) মাধ্যমে প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে চায় মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যে প্রকল্পে অর্থায়নে আগ্রহ প্রকাশ করেছে সড়ক নির্মাণে দক্ষ দেশ হিসেবে পরিচিত দক্ষিণ কোরিয়া। প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে সর্বোচ্চ দেড় ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা থেকে ময়মনসিংহ পৌঁছানো সম্ভব হবে।

সড়ক ও জনপথ সূত্রে জানা গেছে, ইতোমধ্যে এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করা হয়েছে। সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের উর্ধতন কর্তৃপক্ষও সম্প্রতি ময়মনসিংহ সফর করেছেন। সবকিছু ঠিক থাকলে সমীক্ষা, পরিকল্পনা, ডিজাইন গ্রহণের মাধ্যমে একনেকে পাসের পর মূল কার্যক্রম শুরু হতে পারে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ ও দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের মধ্যে জিটুজি ভিত্তিতে পিপিপির মাধ্যমে এ প্রকল্পে অর্থায়ন করা হবে জানিয়ে প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আমরা প্রকল্পের বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়াকে জানিয়েছি। তারা অর্থায়নের বিষয়ে ইতোমধ্যে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তাছাড়া ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশে এরকম এক্সপ্রেসওয়ে রয়েছে। দ্রুত ও উন্নত সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়েই এরকম প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে বিভিন্ন দেশ। বর্তমানে বিশে^ সর্বাধুনিক সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা হলো এক্সপ্রেসওয়ে। জানা গেছে, ইতোমধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ প্রকল্পে অর্থায়নের আশ্বাস দিয়েছে। কিছু দিনের মধ্যেই বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের লোকজনের বাংলাদেশে এসে প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনের কথা রয়েছে। এ ছাড়াও ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কও এক্সপ্রেসওয়ে ১০ লেনে উন্নীত করে নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের।

এক্সপ্রেসওয়ে বিশেষজ্ঞ সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী শিশির কান্তি রাউত জনকণ্ঠকে বলেন, বিদ্যমান চার লেন বিশিষ্ট জয়দেবপুর-ময়মনসিংহের ৮৭ দশমিক ১৮ কিলোমিটার সড়কটি এখন এক্সপ্রেসওয়ের মাধ্যমে ১০ লেনে উন্নীত করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। বিদ্যমান চার লেনের পাশাপাশি ১০ ফুট প্রশস্ত দু’পাশে ব্যারিয়ার দিয়ে ইমার্জেন্সি লেন নির্মাণ করা হবে। যা দিয়ে শুধু এ্যাম্বুলেন্স, নিরাপত্তা গাড়ি, ভিআইপিসহ যে কোন জরুরী প্রয়োজনীয় গাড়ি চলাচল করবে। এর পর আরও ১৮ থেকে ২৪ ফুট করে স্বল্প গতির যান চলাচলের জন্য আলাদা দুটি লেন করা হবে। একপাশে পাঁচটি সড়ক লেনসহ দুপাশে দশ লেনের সড়ক নির্মাণের পরিকল্পনা করা হচ্ছে। প্রতি ২-৩ কিলোমিটার পর আন্ডারপাস ইউটার্ন নির্মিত হবে। দুপাশের অন্য সড়ক থেকে এক্সপ্রেসওয়ে সড়কে উঠতে ও বের হতে ইন্টারচেঞ্জ- যা আন্ডারপাস ও ওভারপাস সিস্টেমে কোন গাড়ি মুখোমুখি হবে না।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের অন্যান্য খবর
© All rights reserved © Sandhani TV
Theme Design by Hasan Chowdhury