মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৫:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শোক বার্তা পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে চেয়ারম্যান সমরের মানবিক আয়োজন আশুলিয়ায় আঃলীগের র্কমীসভা ও ইফতার দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে আশুলিয়ায় ঈদকে সামনে রেখে শ্রমিকদের মানববন্ধন আশুলিয়ায় নববর্ষের মঙ্গল শোভাযাত্রা উদযাপিত দেশবাসীকে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইজ্ঞিঃ মো,ইসমাইল ভৃঁইয়া (বকুল) সাঈদের নেতৃত্বে হামলার শিকার হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালের বেডে রাসেল ধামসোনা ইউনিয়নে কয়েক টা রোড নির্মান কাজের শুভ উদ্বোধন চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম সাভারে প্রতিবেশীসহ ৩ বেলা আহার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মাসব্যাপী ইফতার বিতরণ কর্মসূচি জিরানি স্টান্ড চাঁদাবাজদের দখলে বিপাকে ব্যবসায়ীরা
ব্রেকিং নিউজ :
সাত বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় তিন ধরনের প্রতিবেদনে গরমিল পাওয়ায় অসন্তোষ জানিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন, সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক ও পুলিশ সুপারসহ (এসপি) সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আসামির জামিনের শুনানি নিয়ে রোববার (১৭ জানুয়ারি) বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও কে এম জাহিদ সারওয়ারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আজ জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. শাহপরান চৌধুরী। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম। সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম আদেশের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন।

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে ৫ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের সরকারি বই সাড়ে ২৭ হাজার টাকায় বিক্রি

শাকির হায়দার, গাইবান্ধা..

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় মাধ্যমিক পর্যায়ের সরকারি পুরাতন বই গোপন নিলামে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। এসব বইয়ের বাজার মূল্য ৫ লক্ষাধিক টাকার বেশি হবে বলছেন সচেতন মহল। তবে বইগুলো সাড়ে ২৭ হাজার টাকায় বিক্রির কথা বলছেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এইচএম মাহাবুবুল ইসলাম।

রোববার দুপুরে সাদুল্লাপুর উপজেলা পরিষদের সাব-রেজিস্ট্রার অফিস ভবনের স্টোর রুম থেকে বইগুলো ট্রাক ভর্তি করার সময় ঘটনাটি জানা জানি হয়।।
খবর পেয়ে সত্যতা জানতে ঘটনাস্থলে গেলে দেখা যায়, ১০-১২ জন শ্রমিক গুদাম থেকে পুরাতন বইগুলো ট্রাক ভর্তি করছে। জানতে চাইলে বই নিতে আসা দুই ব্যববসায়ী জানান, ২০১৬ থেকে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের পুরাতন বই ১ লাখ ৩৫ হাজার টাকায় নিলামে কিনেছেন। তাদের ভাষ্যমতে, গত ১৬ জানুয়ারি নিলামে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে শহরের দিশা ট্রেডার্সের কাছে ৩-৪টি গুদামের সংরক্ষিত বইগুলো বিক্রির সিদ্ধান্ত হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার ৩-৪টি গুদামে মাধ্যমিক পর্যায়ের পুরনো বিভিন্ন শিক্ষা বর্ষের বিপুল পরিমাণ বই মজুদ আছে। এসব বইয়ের বাজার মূল্য ৫ লক্ষাধিক টাকার বেশি হবে বলছেন সচেতন মহল।

স্থানীয়সহ অনেক অভিভাবকই বলছেন, গোপন চুক্তিতে বই বিক্রি করায় সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হলেও পকেট ভারি হয়েছে শিক্ষা কর্মকর্তা এইচ এম মাহাবুবুল ইসলামের।
অভিযোগের বিষয়ে জানতে অফিসে গিয়েও পাওয়া যায়নি সাদুল্লাপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এইচ এম মাহাবুবুল ইসলামকে। তবে মুঠফোনে তিনি বলেন, গত ১৬ জানুয়ারি তিনটি গুদামের সংরক্ষিত বই বিক্রির নিলামে ৫ জন দরদাতা অংশ নেয়। পরে সর্ব্বোচ্চ দরদাতার কাছে ১০ টাকা কেজি দরে মোট সাড়ে ২৭ হাজার টাকায় বইগুলো বিক্রি করা হয়।
এ সময় গোপন চুক্তি ও উৎকোচের বিনিময়ে বই বিক্রির অভিযোগ এড়িয়ে বলেন, বিষয়টি নিয়ে আপনাদের সঙ্গে নিলাম ক্রেতারা যোগাযোগ করবেন।
আর বই বিক্রির বিষয়ে ভিন্ন কথা বলছেন সাদুল্লাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোছা. রোকসানা বেগম।
তিনি বলেন, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পুরাতন বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষের বইগুলো ২৫ হাজার টাকায় বিক্রির কথা জানান। এ নিয়ে বিভিন্নভাবে তার কাছে নানা অভিযোগও আসে। পরে নিলামে বই বিক্রি বন্ধের জন্য মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


Our Like Page

প্রযুক্তি সহায়তায় Freelancer Zone