ঢাকা ১১:৫৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
আশুলিয়া থানা যুবলীগের ভবিষ্যৎ কান্ডারী দেওয়ান রাজু আহমেদ সাতক্ষীরা কিন্ডারগার্টেনের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত” সাভার উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে ৬৫ তম ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে চান হাজী মোঃ মোশাররফ খান একজন পরিশ্রমী জনবান্ধব ইউপি সচিব শরীফুজ্জামান বিপুল ভোটে ঢাকা ১৯ এর সাংসদ সদস্য নির্বাচিত হলেন মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম সাভারের আশুলিয়ায় নির্বাচন বন্ধে বিএনপি’র লিফলেট বিতরণ সাভারে নির্বাচনের হালচাল সাভারে ইউসুফ আলী চুন্নুর নেতৃত্বে ঈগল মার্কার পক্ষে নির্বাচনী গনসংযোগ জনসমুদ্রে পরিনত সাভারে ঈগল মার্কার সমর্থনে নির্বাচনী প্রচারণায় ইউসুফ আলী চুন্নু

ঢাকা-১৯ (সাভার- আশুলিয়া) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে পছন্দ তৃণমূলের

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৩৩:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ৬৩ বার পড়া হয়েছে
sandhanitv অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

মোঃ সাগর হোসেন:
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন আসন্ন। আগামী বছরের শুরুতেই অনুষ্ঠিত হবে এই নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের সারাদেশের নেতাকর্মীদের মধ্যে খুশির জোয়ার বইছে। পিছিয়ে নেই ঢাকার রাজধানী খ্যাত ( ঢাকা- ১৯ )সাভার আশুলিয়ার নেতাকর্মীরা। আগামী নির্বাচন নিয়ে তারা ভাবতে শুরু করেছেন। তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, এবং আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে তারা পছন্দের তালিকায় শীর্ষে রেখেছেন। তাদের ভাষ্যমতে, মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম রাজপথের লড়াকু সৈনিক।আওয়ামী লীগের বিপর্যয় ও দুঃসময়ে তিনি ছিলেন রাজপথের লড়াকু সৈনিক। কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে একত্রে বিএনপি জোট সরকারের আমলে তিনি রাজপথে সংগ্রাম করেছেন। আওয়ামী লীগের যে কোন মিছিল, মিটিং জনসভায় হাজার হাজার নেতাকর্মী নিয়ে তার উপস্থিতি লক্ষণীয়। দলের দুর্দিনে তিনি ছিলেন সরব। সাভার আশুলিয়ার উন্নয়নে তিনি অনেক অবদান রেখেছেন। তিনি দরিদ্র দুস্থ মানুষের পাশে থেকেছেন সব সময়। তৃণমূল থেকে শুরু করে সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদেরকে তিনি মূল্য দিয়েছেন সমানভাবে। তাই আমরা তৃণমূলের জনগণ এবং ভোটাররা আগামী নির্বাচনে মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে ঢাকা-১৯ আসনের এমপি হিসেবে পেতে চাই। এমনি ধারণা ব্যক্ত করেন তৃণমূলের অসংখ্য নেতাকর্মী। খোঁজখবর নিয়ে জানা যায় মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম সাভার আশুলিয়ার এমপি নির্বাচিত হলে, পুরোপুরি পাল্টে যাবে এই অঞ্চলের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক অবস্থানসহ সকল সেক্টর। সাভার আশুলিয়ার বেশিরভাগ নেতাকর্মীরা মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে সমর্থন করছেন বলে মনে করেন অনেক সাধারন ভোটারগণ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ঢাকা-১৯ (সাভার- আশুলিয়া) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে পছন্দ তৃণমূলের

আপডেট সময় : ১২:৩৩:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

 

মোঃ সাগর হোসেন:
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন আসন্ন। আগামী বছরের শুরুতেই অনুষ্ঠিত হবে এই নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের সারাদেশের নেতাকর্মীদের মধ্যে খুশির জোয়ার বইছে। পিছিয়ে নেই ঢাকার রাজধানী খ্যাত ( ঢাকা- ১৯ )সাভার আশুলিয়ার নেতাকর্মীরা। আগামী নির্বাচন নিয়ে তারা ভাবতে শুরু করেছেন। তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, এবং আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে তারা পছন্দের তালিকায় শীর্ষে রেখেছেন। তাদের ভাষ্যমতে, মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম রাজপথের লড়াকু সৈনিক।আওয়ামী লীগের বিপর্যয় ও দুঃসময়ে তিনি ছিলেন রাজপথের লড়াকু সৈনিক। কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে একত্রে বিএনপি জোট সরকারের আমলে তিনি রাজপথে সংগ্রাম করেছেন। আওয়ামী লীগের যে কোন মিছিল, মিটিং জনসভায় হাজার হাজার নেতাকর্মী নিয়ে তার উপস্থিতি লক্ষণীয়। দলের দুর্দিনে তিনি ছিলেন সরব। সাভার আশুলিয়ার উন্নয়নে তিনি অনেক অবদান রেখেছেন। তিনি দরিদ্র দুস্থ মানুষের পাশে থেকেছেন সব সময়। তৃণমূল থেকে শুরু করে সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদেরকে তিনি মূল্য দিয়েছেন সমানভাবে। তাই আমরা তৃণমূলের জনগণ এবং ভোটাররা আগামী নির্বাচনে মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে ঢাকা-১৯ আসনের এমপি হিসেবে পেতে চাই। এমনি ধারণা ব্যক্ত করেন তৃণমূলের অসংখ্য নেতাকর্মী। খোঁজখবর নিয়ে জানা যায় মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম সাভার আশুলিয়ার এমপি নির্বাচিত হলে, পুরোপুরি পাল্টে যাবে এই অঞ্চলের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক অবস্থানসহ সকল সেক্টর। সাভার আশুলিয়ার বেশিরভাগ নেতাকর্মীরা মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে সমর্থন করছেন বলে মনে করেন অনেক সাধারন ভোটারগণ।